প্রতারণা থেকে একজন শিক্ষক যেভাবে হলেন ওয়েব ডিজাইনার ।

প্রতারণা থেকে একজন শিক্ষক যেভাবে হলেন ওয়েব ডিজাইনার ।

প্রতারণা থেকে একজন  শিক্ষক যেভাবে হলেন ওয়েব ডিজাইনার ।

‘পৃথিবীতে শিক্ষার বিকল্প নেই’ কথাটা যেমন ধ্রুব সত্য ,তেমনি ‘শিক্ষা গ্রহণের ক্ষেত্রেরও নির্দিষ্টতা নেই’কথাটাও চিরন্তন সত্য । কেউ শিক্ষা গ্রহণ করে ঠকে,কেউবা ঠেকে আবার কেউ কেউ শিক্ষা গ্রহণ করে প্রতারণার স্বাদ গ্রহণের মাধ্যমে ।আজ এমনই একজন শিক্ষকের  দৃষ্টান্ত উপস্থাপন করছি ,যিনি প্রতারণার স্বাদ গ্রহণের মাধ্যমে অর্জন করেছেন অমূল্য শিক্ষা ।শিক্ষক হিসেবে তিনি কর্মরত আছেন আসনা-গোপালপুর রাহিলা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়,ঈশ্বরদী পাবনা’য়  ।বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে অনার্স ,মাস্টার্স ও শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে নয়ন কুমার মন্ডল  এ বিদ্যালয়ে যোগদান করেন ২০১০ সালে ।মূল ঘটনাটা ২০১২ সালের কনো এক সময়ের ।সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী প্রত্যেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ডায়নামিক ওয়েব সাইট তৈরির কার্যক্রম শুরু হয়, সেই সাথে শুরু হয় কিছু সংখ্যক চাটুকার ও ধোঁকাবাজদের কারসাজি । যদিও সেই সময় বাংলা সাহিত্যের উক্ত শিক্ষকের আইটি সম্পর্কে ভালো জ্ঞান ছিলোনা ,পরবর্তীতে ২০১৪ সালে জানা গেলো স্কুলের ওয়েব সাইটটি তৈরি করা হয়েছে সাব-ডোমেইন দিয়ে (অর্থাৎ বাড়িটি আপনার কিন্তু জমিটি অন্যের )।তখন থেকেই সেই প্রতারণার যন্ত্রণা থেকে নয়ন কুমার দৃঢ় প্রত্যয়ে নেমে পড়েন ওয়েব ডিজাইনার হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে । পরিচয় ঘটে রাজশাহী জেলার তাহেরপুর পৌরসভার বিক্রম রাজ এর সাথে, যিনি ‘জাগরণ বাংলাদেশ আইটি’র (jbdit.com.bd) কর্ণধার । শুরু হয় একসঙ্গে  পথ চলা । ৫৯ কিলমিটার রাস্তা মোটরসাইকেল চালিয়ে সপ্তাহের প্রতি শুক্রবার চলতে থাকে প্রশিক্ষণ গ্রহণ । সকাল ১০টায় প্রশিক্ষণ শুরু এবং বিকেল ৪টায় শেষ করে আবার ৫৯ কিলমিটার ফেরত আসা  । এভাবে চলতে থাকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত ।প্রশিক্ষক বিক্রম রাজ যদিও বয়সে ১৫ বছরের জুনিয়র,তবুও প্রশিক্ষক – প্রশিক্ষনার্থীর মাঝে সম্মানবোধ বজায় ছিলো । ২০১৭ সালে নিয়তি ধরা দিলো নিজেদের অনুকুলে ।”জাগরণ বাংলাদেশ আইটি’নির্বাচিত হলো স্টার্ট-আপ কোম্পানী হিসেবে ,রাজশাহী বিভাগীয় চ্যাম্পিয়নের গৌরব সহ ,যেখানে সমগ্র বাংলাদেশে ১০টি টিম স্টার্ট আপ হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে । এর পর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি । নিজস্ব সার্ভারে বর্তমানে ৪৩১ টি প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট,নিজস্ব ১৭ এ্যাপ্স,স্কুল ম্যানেজমেন্ট সফটওয়ার,অফিস ম্যানেজমেন্ট সফটওয়ার ,বায়োমেট্রিক হাজিরা পদ্ধতি,ডিজিটাল পরিচয় পত্র,  কাস্টম ডিজাইন যোগ্য প্রন্টিং সেক্টর ,নিজস্ব অনলাইন রেডিও  সহ ‘শেখ কামাল আইটি এ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার ,নাটোর ও তাহেরপুর,রাজশাহী অফিসের মাধ্যমে মোট ৩৯ প্রকার সেবা প্রদান করছে ‘জাগরণ বাংলাদেশ আইটি’।

বর্তমানে এ প্রতিষ্ঠানে কর্মরত যারা ঃ (১) বিক্রম রাজ ,সিইও,(২) নয়ন কুমার মন্ডল ,ওয়েব ডিজাইনার,০১৭১৪ ৫৬৯৩২২ (৩) প্রতাব চন্দ্র ঘোষ ,মার্কেটিং ম্যানেজার, (৪) গোবিন্দ সরকার , ডাটা এন্ট্রি অপারেটর এবং (৫) বিপুল কুমার সরকার অফিস ম্যানেজমেন্ট । ( সম্প্রতি (১৮/০৭/২০১৯ তারিখে ) নয়ন কুমার  ঈশ্বরদী গার্লস স্কুল এ্যান্ড কলেজের ডায়নামিক ওয়েবসাইট ,ডিজাইন ও ডেভলপমেন্টের কাজ সম্পন্ন করে কর্তৃপক্ষের নিকট হস্তান্তর করেছে । ওয়েবসাইটটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন

 

No Comments

Post a Comment

Comment
Name
Email
Website

%d bloggers like this: